আতিকুল ইসলামকে গণসংযোগ চালিয়ে যেতে বলেছেন ,প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আতিকুল ইসলামকে গণসংযোগ চালিয়ে যেতে বলেছেন ,প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

ঢাকা প্রতিনিধি, অভয়নগরবার্তাঃ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন (ডিএনসিসি) উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থী হিসেবে আলোচনায় থাকা আতিকুল ইসলামকে গণসংযোগ চালিয়ে যেতে বলেছেন।

প্রধানমন্ত্রী শনিবার তাকে জরুরিভাবে ডেকে নিয়ে এ পরামর্শ দেন। দুপুর ২টার দিকে এ ব্যবসায়ী নেতা গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করতে যান।

বাংলাদেশ তৈরি পোশাক প্রস্তুত ও রফতানিকারক সমিতির (বিজিএমইএ) সাবেক সভাপতি আতিকুল ইসলাম।

২০১৩ সালে রানা প্লাজা ট্র্যাজেডির সময়ে বিজিএমইএর নেতৃত্বে থেকে সফলভাবে পরিস্থিতি মোকাবেলা করেও তিনি দেশ-বিদেশে প্রশংসিত হন। বেশ কিছুদিন ধরে আতিকুল ইসলাম মেয়র প্রার্থী হিসেবে নগরীতে গণসংযোগ করছেন।

দায়িত্বশীল একটি সূত্র জানায়, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আতিকুল ইসলাম প্রায় ১৫ মিনিট কথা বলেন।

এ সময় দু’জনের আলোচনায় ডিএনসিসি উপনির্বাচন সংক্রান্ত বিষয় প্রাধান্য পায়।

তবে এ আলোচনায়ও আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থিতার চূড়ান্ত নিষ্পত্তি হয়নি। যদিও প্রয়াত মেয়র আনিসুল হকের যোগ্য উত্তসূরি হিসেবে এ ব্যবসায়ী নেতাকে অনেক আগেই প্রধানমন্ত্রী সবুজ সংকেত দিয়ে রেখেছেন বলে সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন আতিক।

আতিকুল ইসলামের সঙ্গে শনিবার বিকাল সোয়া ৫টার দিকে যোগাযোগ করলে তিনি যুগান্তরকে বলেন, ‘গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কিছু সময়ের জন্য আমার সৌজন্য সাক্ষাৎ হয়েছে। বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে ডিএনসিসির উপনির্বাচন ও মেয়র প্রার্থিতার বিষয়ে আমাকে ঘিরে যে খবর বেরিয়েছে- সেসব বিষয়ে জানতে তিনি আমাকে ডেকেছিলেন। এ সৌজন্য সাক্ষাৎ ও সংক্ষিপ্ত মতবিনিময়ে প্রধানমন্ত্রীকে আমার আগ্রহ এবং এর পরিপ্রেক্ষিতে কী ধরনের প্রস্তুতি নিচ্ছি, কোথায় কাদের সঙ্গে মতবিনিময় হচ্ছে- কারা কেমন সাড়া দিচ্ছেন ও উৎসাহ জোগাচ্ছেন তা বিস্তারিত অবহিত করেছি। প্রধানমন্ত্রী আমার কথা শুনেছেন এবং আমার তৎপরতা অব্যাহতভাবে চালিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন।’

তাহলে এ সাক্ষাতে আপনাকে চূড়ান্ত প্রার্থিতার বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়নি- এমন প্রশ্নের জবাবে আতিকুল ইসলাম বলেন, ‘আওয়ামী লীগ দেশের প্রাচীন ও সর্ববৃহৎ একটি রাজনৈতিক দল। দলের অভ্যন্তরে গণতন্ত্র চর্চাকে সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়ে দেখা হয়। এখানে নির্বাচনী বোর্ড আছে, যোগ্য প্রার্থী যাচাই-বাছাইয়ের বিষয় আছে। এসব আনুষ্ঠানিকতা এখনও শেষ হয়নি। সবকিছু মেনেই দল চূড়ান্ত প্রার্থী ঘোষণা করবে। আমি শুধু আমার কাজ করে যাচ্ছি। এটা অব্যাহত থাকবে। রোববার (আজ) বিকাল ৩টায় রাজধানীর ভাষানটেক মোড়ে স্থানীয় লোকজন ও আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় করব।’

Leave a Reply